• শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন
  • English English French French German German
ব্রেকিং নিউজ
বগুড়ায় ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদক সম্রাট আসিক গ্রেফতার! নিরাপদ সড়ক চাই ,ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার উদ্যোগে সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে পার্বতীপুরে জাগো রংপুরের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত মানব নতুন কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান। আপন এক্সপ্রেস কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিস লিঃ এর প্রধান কার্যালয়ের ফিতা কেটে উদ্বোধন করলেন ডঃ মির্জা জলিল ছেলে ‘হত্যা’র বিচারের দাবিতে বাবার সংবাদ সম্মেলন জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে থাকব ————‘লৌহমানব’ মোহাম্মদ আলী চৌধুরী লালমনিরহাটে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে লাখ টাকা জরিমানা বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা, থানায় অভিযোগ, ৭ নেতাকর্মীকে অব্যাহতি টেকনো স্পার্ক ৮ প্রো’র ৪ জিবি ভার্সন এখন বাংলাদেশে

ছাত্রদল কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে উপজেলা কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ

Reporter Name / ২৫৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১

ডেক্স রিপোর্ট :

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও যুগ্ম সম্পাদক কর্তৃক মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিবাহিত ও অযোগ্য কর্মীদের পদমর্যাদা দিয়ে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে দিনাজপুরের কয়েকটি উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে গত ১০/০৩/২০২১ ইং তারিখে দিনাজপুর জেলা ছাত্রদলের অধীনস্থ ৪টি ইউনিট কমিটি প্রকাশ করা হয়। এই ৪টি কমিটি হলো বিরল, ফুলবাড়ী, পাবর্তীপুর উপজেলা ও পাবর্তীপুর পৌর শাখা। এই ৪টি কমিটি জেলা ছাত্রদল এবং তৃণমূলের মতামত উপেক্ষা করে গঠিত হয় বলে অভিযোগ উঠে। কমিটিগুলো তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে গঠিত না হওয়ার কারণে পাবর্তীপুর ও ফুলবাড়ী উপজেলায় সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিবাদ জানানো হয়। বিরল ও ফুলবাড়ীতে কমিটি বাতিলের দাবীতে প্রতিবাদ সমাবেশ, মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও প্রতীকি অনশন পালিত হয়। প্রতি ২/৩দিন অন্তর অন্তর কর্মসূচীগুলো পালিত হয়ে আসছিলো। কিন্তু করোনার প্রকোপ থাকায় এবং বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটি করোনা প্রকোপের কারণে দলীয় কর্মসূচী স্থগিত করায় স্থানীয় ছাত্রদল নেতাকর্মীরা কমিটি বাতিলের আন্দোলন স্থগিত রেখেছে। কমিটিগুলো গঠন করা হয়েছিল আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে বলে অভিযোগ উঠে। আর্থিক লেনদেনে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন এবং ছাত্রদল রংপুর বিভাগীয় টিমের সদস্য ও ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ তবিবুর রহমান সাগরের নাম শোনা যায়। ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সভাপতি খোকনের সাথে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুরুল হুদা বাবু এবং দিনাজপুর জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফরিজার রহমান তপুর ভালো সম্পর্ক। কারণ নুরুল হুদা বাবু ও তপু ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের সময় খোকনের হয়ে কাজ করেছিলেন তাই খোকনের একটা ঋণশোধের প্রবণতা কাজ করে নুরুল হুদা বাবু এবং তপুর ক্ষেত্রে। নুরুল হুদা বাবু এবং তপুর উদ্যোগে ছাত্রদল বে-সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম সম্পাদক মোঃ রিসালাত সজিবের মধ্যস্থতায় টাকার বিনিময়ে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সভাপতি ফুলবাড়ী ও পাবর্তীপুরের কমিটি কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে প্রকাশ করান। কমিটি পরবর্তী বিদ্রোহ ও সংবাদ সম্মেলনের পরিস্থিতি সামাল দিতে ছাত্রদলের সভাপতি খোকনকে সহযোগীতা করেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম ফকির লিংকন। লিংকন ছাত্রদল রংপুর বিভাগীয় টিমের টিম প্রধান। সহ-সভাপতি লিংকন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে কমিটি গঠনে অনিয়মের বিষয়টি চাপা দিয়ে খোকনের পক্ষ নিয়ে বক্তব্য তুলে ধরেছিলেন। আর্থিক লেনদেনে সংশ্লিষ্ট না থাকলেও যোগ্য ছেলেদেরকে নেতৃত্ব থেকে বাদ দিতে খোকনের পাশাপাশি সহ-সভাপতি লিংকন এর অবদান কম নয়।
ফুলবাড়ী ও পাবর্তীপুর শাখার পাশাপাশি বিরল উপজেলা ছাত্রদলের কমিটিতে আরো বড় অনিয়ম করা হয়। কেন্দ্রীয় ছাত্রদল কর্তৃক প্রণীত নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ১৯৯৯-২০০০ সেশনের সুমন রেজাকে আহবায়ক এবং বিবাহিত মোঃ রেজাউল ইসলাম রুবেলকে সদস্য সচিব করে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে কমিটি প্রকাশ করা হয়।
বিরল ছাত্রদলের আহবায়ক সুমন রেজার বয়স বেশি এবং সে এসসিএস ২০০১ এর ব্যাচ এটা স্থানীয় সকলেই জানে। সুমন রেজা টানা অকৃতকার্য হয়ে ২০০৬ সালে এসএসসি পাশ করে। অপরদিকে সদস্য সচিব রুবেল বিরল উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের সারাঙ্গাই গ্রামের মোঃ মইন উদ্দিন মেম্বারের কন্যা জাহানারা মুন্নির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিরল উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সম্পাদক তবিবুর রহমান সাগর মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সভাপতি খোকন ও সহ-সভাপতি লিংকনকে ম্যানেজ করে কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে কমিটি ঘোষনা করান। এছাড়াও বিরল উপজেলা ছাত্রদলের ৩নং যুগ্ম আহবায়ক নুর ইসলামও বিবাহিত বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিরল উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোঃ বাবুল হোসেন জানান, বিরল উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব রুবেল ও যুগ্ম আহবায়ক নুর ইসলাম বিবাহিত। অপরদিকে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় দপ্তর ঘোষিত বিরল উপজেলা ছাত্রদলের ১নং যুগ্ম আহবায়ক মিজানুর রহমন, যুগ্ম আহবায়ক রুহুল আমিন, মনির হোসেনসহ আরো কয়েকজন ছাত্রনেতা বিবাহের বিষয়গুলো সত্য বলে দাবী করেন এবং তাদেরকে কমিটি থেকে বাদ দিয়ে তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে জেলা ছাত্রদল কর্তৃক কমিটি প্রদানের জোর দাবী জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ