• শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:০০ অপরাহ্ন
  • English English French French German German
ব্রেকিং নিউজ
বগুড়ায় ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদক সম্রাট আসিক গ্রেফতার! নিরাপদ সড়ক চাই ,ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার উদ্যোগে সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে পার্বতীপুরে জাগো রংপুরের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত মানব নতুন কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠান। আপন এক্সপ্রেস কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিস লিঃ এর প্রধান কার্যালয়ের ফিতা কেটে উদ্বোধন করলেন ডঃ মির্জা জলিল ছেলে ‘হত্যা’র বিচারের দাবিতে বাবার সংবাদ সম্মেলন জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে থাকব ————‘লৌহমানব’ মোহাম্মদ আলী চৌধুরী লালমনিরহাটে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে লাখ টাকা জরিমানা বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা, থানায় অভিযোগ, ৭ নেতাকর্মীকে অব্যাহতি টেকনো স্পার্ক ৮ প্রো’র ৪ জিবি ভার্সন এখন বাংলাদেশে

সুলতানপুর বাড়াই পাড়া ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় ঈদগাহ্ মাঠটি প্রায় বিলুপ্তির পথে

Reporter Name / ১০৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশ : বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার ১নং কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের সুলতানপুর বাড়াই পাড়া মচ্ছ নদীর তীরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় ঈদগাহ্ মাঠ। মচ্ছ নদী ভাঙ্গনের ফলে ঈদগাহ্ মাঠটি প্রায় বিলুপ্তির পথে। ১০ (দশ) বছর পূর্বে ঈদগাহ্ মাঠটি ০২ (দুই) একর জমি নিয়ে অবস্থিত ছিল।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মচ্ছ নদী ভাঙ্গনের ফলে জমির পরিমান দাঁড়িয়েছে মাত্র ০১ (এক) একরে। যে হারে নদী ভাঙ্গন শুরু হয়েছে এতে আগামী ১ বছরে মাঠটি বিলিন হয়ে যাবে।

পূর্বে ঈদগাহ্ মাঠটিতে ১০ টি গ্রামের প্রায় ১০ থেকে ১৫ হাজার মুসল্লি একসাথে জামাতের সহিত নামাজ আদায় করতো। জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে ও নদী ভাঙ্গনের কারনে স্বল্প জমিতে এতো মুসল্লি নিয়ে নামাজ আদায় অসম্ভব হয়ে পরেছে।
এলাকাবাসীর ধারণা নদী ভাঙ্গন রোধ করতে প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার প্রয়োজন। প্রত্যান্ত পল্লী ১নং কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের ৯৫ শতাংশ গরীব, অসহায় খেটে খাওয়া মানুষ। নিজেদের সংসার চালাতে তারা হিমশিম খায়। এর পরেও নদী ভাঙ্গন রোধ করতে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা দিয়ে কাজটি শুরু করেছে। এলাকাবাসীর পক্ষে এতো বড় কাজটি সম্পন্ন করা সম্ভব নয়। ইতিপূর্বে ঈদগাহ্ মাঠটিতে সরকারি তহবিল থেকে কোনো অনুদান পায়নি বলে জানান মাঠ কর্তৃপক্ষ।

ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রীয় ঈদগাহ্ মাঠটি নদী ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষার্থে ১০ টি গ্রামের জনগণ স্থানীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ